লিডারশিপ লেসন্‌স ফ্রম দ্য লাইফ অব রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম)

লিডারশিপ লেসন্‌স ফ্রম দ্য লাইফ অব রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম)

সেক্যুলার রাজনীতিতে নেতৃবৃন্দের যে আনুগত্যের কথা বলা হয়, সেখানে মানুষকেই মানুষের প্রভু-উপাস্য বানিয়ে নেওয়া হয়; কারণ সেখানে মানুষই চূড়ান্ত, মানুষই সর্বোচ্চ, মানুষই সার্বভৌম—তাহার ওপরে নাই। পক্ষান্তরে ইসলামে নেতৃত্ব একটি ইবাদাত। নেতৃত্ব দেওয়া ও নেতৃত্বের আনুগত্য—উভয়টিই ইবাদাত। ইসলামে নেতৃবৃন্দের আনুগত্যকে সম্পৃক্ত করা হয়েছে আল্লাহর ইবাদাতের সঙ্গে—আর তা ততক্ষণ কার্যকর থাকবে, যতক্ষণ নেতৃবৃন্দ সৃষ্টিকে স্রষ্টার বিধানমতে পরিচালনা করবেন। তাই এখানে নেতৃত্ব অর্থ হলো, নিজে স্রষ্টার ইবাদাত করা এবং সকলের জন্য তাঁর ইবাদাতকে সহজ করে দেওয়া।

একটি জাতির উত্থানপতনের সঙ্গে নেতৃত্বের সংযোগ-সম্পর্ক অত্যন্ত গভীর। নেতৃত্বের অধঃপতন একটি জাতির পতন যেমন অনিবার্য করে তোলে, তেমনি নেতৃত্বের সংকটই একটি জাতির উত্থানকে করে বিলম্বিত। নেতৃত্বের লোভ ধনসম্পদ ও অর্থবিত্তের লোভের চেয়েও ভয়ংকর। ইসলামের ইতিহাসে মুসলিম জাতির যে উত্থানপতন দেখা যায়, তাতেও নেতৃত্বই মূল অনুঘটক। নেতৃবৃন্দের কারণেই জাতি মুখ থুবড়ে পড়েছে, আবার তাদের অবদানেই মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে।

মুসলিম জাতির সামনে নেতৃত্বের শিক্ষাগ্রহণের জন্য যে বিশুদ্ধ উৎস রয়েছে, তা অন্য কোনো জাতির নেই। আসমানি উৎস—স্বয়ং আল্লাহর নবি মুহাম্মাদ (সা.) এর বাস্তব জীবন। তাঁর জীবনের পরতে পরতে নেতৃত্বের যে শিক্ষা রয়েছে তাকে মুক্তা আহরণকারীদের মতো নিপুণতার সঙ্গে এই বইয়ে তুলে এনেছেন সমকালীন প্রথিতযশা লিডারশিপ ট্রেইনার মির্জা ইয়াওয়ার বেইগ। আশা করি আপনাকে জীবনে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিতে বইটি অসামান্য ভূমিকা রাখবে ইনশাআল্লাহ।

প্রিয়তমা

প্রিয়তমা

আয়েশার সঙ্গে রাসুল মুহাম্মদের (সা.) দাম্পত্যজীবন কি অসুখী ছিলো? একজন কেবলই কিশোরী, আরেকজন পঞ্চাশোর্ধ্ব প্রবল ব্যক্তিত্ববান মানুষ; কেমন ছিলো অসম বয়সী এ দুজনের প্রেমময় সংসারের হালচাল? ঝগড়া হতো? খুনসুটি? মান-অভিমানে কান্না হতো?
খাদিজা (রা.) কেন প্রৌঢ়ত্বের দ্বারপ্রান্তে এসে হাত বাড়িয়ে আগলে নিলেন যুবক মুহাম্মদের হাত? মুহাম্মদ (সা.) যেদিন নবি হলেন, ভয়ে কাঁপছিলেন তিনি; খাদিজা তাঁকে বুকে জড়িয়ে কেন বলেছিলেন, ‘ভয় নেই আপনার’?
কেন সুদূর ইথিওপিয়ার রাষ্ট্রপ্রধান নাজ্জাশির রাজপ্রাসাদে আয়োজন করা হলো মুহাম্মদ (সা.) এবং কুরাইশকন্যা উম্মে হাবিবার বিয়ে? কেন ইহুদি রাজকুমারী সাফিয়্যাকে যুদ্ধদাসী থেকে বরণ করে নিলেন উম্মুল মুমিনিন হিসেবে?
রাসুল মুহাম্মদ (সা.) এবং তাঁর ১১ জন স্ত্রীর দাম্পত্যজীবন ও প্রেমের অসংখ্য গল্পভাষ্য নিয়ে রচিত ইতিহাস-অনুসন্ধানী লেখক সালাহউদ্দীন জাহাঙ্গীর-এর অনবদ্য উপাখ্যানগ্রন্থ ‘প্রিয়তমা’। একদিকে নিরেট নির্মোহ ইতিহাসের বর্ণিল আয়োজন, আরেক দিকে উম্মুল মুমিনিনদের জীবনের অনালোচিত অধ্যায়ের নতুন আবিস্কার। নতুন ভাষা ও প্রাঞ্জল গদ্যে রাসুলের দাম্পত্যজীবনের পূর্ণ ছায়াছবি উঠে এসেছে এ গ্রন্থে।