No Image Available
 Description:

ধর্ষণের কারণ সম্পর্কে আমাদের সমাজে কয়েকটি কমন ডিসকোর্স প্রচলিত। প্রথমটা হলো, ধর্ষণের জন্য মেয়েদের পোষাকই দায়ী। প্রচলিত আরেকটা ডিসকোর্স হলো, ধর্ষণের জন্য ছেলেদের মানসিকতাই দায়ী। একটা মেয়ের পোষাক কখনোই এর জন্য দায়ী হতে পারে না। বলাবাহুল্য এ দুধরনের বক্তব্যের পেছনেই শক্তিশালী কোনো প্রমাণ অনুপস্থিত। পোষাকই দায়ী, একথা জোর দিয়ে বলা যাচ্ছে না, কারণ দেখা গেছে বোরকা পরিহিতাও ধর্ষকের নির্মম থাবা থেকে নিরাপদ নন। আর যদি ধর্ষকের মানসিকতাই একমাত্র দায়ী হয় তবুও প্রশ্ন থাকে কী করে তার মাঝে এই নির্মম প্রবনতা জেগে উঠলো।

এ প্রশ্নের জবাব খোঁজা দরকার ছেলে মেয়ে উভয়ের নিরাপত্তার জন্যই। ইতিপূর্বে এ বিষয়গুলো নিয়ে বৈজ্ঞানিক ও ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে কোনো গবেষণাই হয়নি বলতে গেলে। ফলে ধর্ষণের হার ক্রমাগত বৃদ্ধি পেলেও এটি নিয়ন্ত্রনের কোনো রোডম্যাপ আমাদের সামনে ছিল না। তরুণ লেখক ডা শামসুল আরেফিন এই বিষয়টি নিয়ে রচনা করেছেন অনবদ্য গ্রন্থ মানসাঙ্ক’।

 Back